Category: Persons .

عبد الله بن حذافة بن قيس السهمي

English ‘Abdullah ibn Hudhāfah ibn Qays as-Sahmi
اردو عبداللہ بن حذافہ بن قیس سہمی
বাংলা ভাষা আব্দুল্লাহ ইবন হুযাফাহ ইবন কায়েস আস-সাহামী
हिन्दी अब्दुल्लाह बिन हुज़ाफ़ा बिन क़ैस सहमी
తెలుగు అబ్దుల్లాహ్ బిన్ హుజాఫా బిన్ ఖైస్ అస్సహమీ

عبد الله بن حُذَافَة -رضي الله عنه-

English ‘Abdullah ibn Hudhāfah (may Allah be pleased with him)
اردو عبداللہ بن حذافہ -رضی اللہ عنہ-
বাংলা ভাষা আব্দুল্লাহ ইবন হুযাফাহ রাদিয়াল্লাহু আনহু
हिन्दी अब्दुल्लाह बिन हुज़ाफ़ा -रज़ियल्लाहु अन्हु-
తెలుగు అబ్దుల్లాహ్ బిన్ హుజాఫా రజియల్లాహు అన్హు

عبد اللَّه بن حُذَافة بن قيس القرشي السهمي، صحابي جليل، من السابقين الأولين، يقال: شهد بدرًا، ومن مناقبه أن عمر وجّه جيشًا إلى الروم وفيهم عبد اللَّه بن حذافة فأسروه، فقال له ملك الروم: تنصّر أُشْرِكك في ملكي، فأبى، فأمر به فصُلب، وأمر برميه بالسهام، فلم يجزع، فأُنزل وأمر بقدر فصُبّ فيها الماء وأُغلي عليه، وأمر بإلقاء أسير فيها، فإذا عظامه تلوح، فأمر بإلقائه إلم يتنصر، فلما ذهبوا به بكى، فقال: رُدُّوه. فقال له: لم بكيتَ؟ قال: تمنيتُ أن لي مائة نفس تلقى هكذا في اللَّه. فعجب وقال: قبّل رأسي وأنا أُخلِّي عنك. فقال: وعن جميع أسارى المسلمين؟ قال: نعم. فقبّل رأسه، فخلّى بينهم، فقدم بهم على عمر، فقام عمر فقبّل رأسه، توفي نحو 33.

English He is ‘Abdullah ibn Hudhāfah ibn Qays al-Qurashi as-Sahmi. He was an honorable Companion and one of the first forerunners. It was said that he witnessed the Battle of Badr. Among his merits was when ‘Umar dispatched an army to the Romans and ‘Abdullah ibn Hudhāfah, who was in the army, was taken captive. The King of the Romans made him a proposal saying: "Convert to Christianity and I shall make you a partner in my kingdom." But he refused it; so, the king had him put on a cross and ordered his soldiers to throw spears at him. ‘Abdullah did not cry out in fright; hence, he was taken down from the cross. Then, a pot was brought and water was poured in it and it was heated till boiling. One of the captives was, then, thrown therein and his bones could soon be seen. The King ordered that ‘Abdullah be thrown therein if he refused to convert to Christianity. ‘Abdullah wept when being taken to execute the king's command, and when the king asked him about the reason for his weeping, he replied: "I wish I had a hundred souls to be thrown that way in the cause of Allah." The king was astonished at his reply and said: "Kiss my head and I shall set you free." ‘Abdullah asked: "And all the Muslim captives too?" He said: "Yes." So, ‘Abdullah kissed his head and they were all set free. ‘Abdullah brought them to ‘Umar, who stood up and kissed his head. He died in about 33 AH.
اردو عبداللہ بن حذافہ بن قیس قرشی سہمی ایک بڑے صحابی ہیں، ابتدائی دور میں اسلام قبول کرنے والے لوگوں میں شامل تھے، کہا جاتا ہے کہ غزوۂ بدر میں شریک رہے، ان کی ایک فضیلت یہ ہے کہ عمر فاروق -رضی اللہ عنہ- نے روم کی جانب ایک لشکر روانہ کیا، جس میں عبداللہ بن حذافہ بھی شامل تھے، اس بیچ رومیوں نے ان کو قید کر لیا اور روم کے بادشاہ نے ان سے کہا : تم نصرانی بن جاؤ، میں تم کو اپنی بادشاہت میں شریک کر لوں گا، لیکن انھوں نے انکار کر دیا، پھر بادشاہ کے حکم سے ان کو سولی کی لکڑی سے باندھ دیا گیا اور ان پر تیر چلانے کا حکم دیا گيا، لیکن جب اس سے وہ نہيں گھبرائے تو ان کو اتارا گیا اور ایک ہانڈی میں پانی ڈال کر اسے اچھی طرح کھولایا گیا، پھر اس میں ایک قیدی کو ڈال دیا گیا، دیکھتے ہی دیکھتے اس کی ہڈیاں چمکنے لگیں، پھر حکم دیا گیا کہ اگر حذافہ نصرانیت قبول نہ کریں تو ان کو اس کھولتے ہوئے پانی میں ڈال دیا جائے،جب ان کو ہانڈی کے پاس لے جایا گیا تو وہ رو پڑے، باشاہ نے ان کو واپس لانے کا حکم دیا اور رونے کا سبب پوچھا، تو انھوں نے جواب دیا : میرے دل میں اس تمنا نے کروٹ لی کہ کاش میرے پاس سو جان ہوتی اور ہر ایک اسی طرح اللہ کی راہ میں کھولتے ہوئے پانی میں ڈالا جاتا، یہ سن کر اس نے بڑا تعجب کیا اور کہا کہ اگر تم میرے ماتھے کو چوم لو، تو میں تم کو چھوڑ دوں گا۔ اس کی اس پیش کش پر انھوں نے کہا کہ کیا تمام مسلمان قیدیوں کو چھوڑ دوگے؟ چنانچہ بادشاہ نے ہاں میں جواب دیا، تو انھوں نے اس کے ماتھے کو چوما اور بادشاہ نے ان کو چھوڑ دیا۔ بالآخر وہ اپنے ساتھیوں کے ساتھ عمر -رضی اللہ عنہ- کے پاس آئے، تو وہ کھڑے ہوئے اور ان کے سر کا بوسے لیا۔ سنہ 33ھ میں وفات پائی
বাংলা ভাষা আব্দুল্লাহ ইবন হুযাফাহ ইবন কায়েস আল-কুরাইশী আস-সাহামী। তিনি একজন সম্মানিত সাহাবী ছিলেন। তিনি প্রথম ইসলাম গ্রহণকারীদের মধ্যে একজন ছিলেন। বলা হয়: তিনি বদরের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। তার মানাকিবের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে, উমার রোম সম্রাটের কাছে একটি সৈন্যদল প্রেরণ করেন, যার মধ্যে আব্দুল্লাহ বিন হুযাফাহ ছিলেন, তাদেরকে রোমানরা গ্রেপ্তার করেছিল। এরপরে তাকে রোমান সম্রাট বলল: তুমি নাসারা (খ্রীষ্টান) হয়ে যাও, আমি তোমাকে আমার রাজত্বের অংশীদারিত্ব দেব, তিনি তা প্রত্যাখ্যান করলেন। তখন তাকে আদেশক্রমে শুলে চড়ানো হল, তারপরে তীর নিক্ষেপের আদেশ দেওয়া হল, কিন্ত তিনি একটুও ভয় পেলেন না। তখন তাকে নামানো হল, এবং একটি হাড়ি নিয়ে আসার আদেশ দেওয়া হল, এরপরে তাতে পানি ভর্তি করা হল, এবং টগবগ করে ফোটানো হল। এরপরে একজন কয়েদীকে তার মধ্যে ছেড়ে দেওয়ার আদেশ দেওয়া হল, (তা করা হলে) তার হাড়গুলো বেরিয়ে স্পষ্ট হয়ে গেল। এরপরে আব্দুল্লাহ বিন হুযাফাহকে তাতে নিক্ষেপ করার আদেশ দেওয়া হল, যদি সে নাসারা না হয়। যথন তারা তাকে সেখানে নিয়ে যাচ্ছিল, তখন তিনি কাঁদতে লাগলেন। তখন সম্রাট বললেন: তাকে আমার কাছে নিয়ে আস। সে তখন জিজ্ঞাসা করল: কেন কাঁদছ? তিনি বলল: আমার আকাংখা হচ্ছে- আমার যদি একশত প্রাণ থাকত, আর তা যদি এভাবে আল্লাহর পথে (ফুটন্ত পানির মধ্যে) নিক্ষেপ করা হত! তখন রোমান সম্রাট অবাক হয়ে বলল: আমার মাথায় একটি চুমু দিলে আমি তোমাকে মুক্ত করে দেব। তখন তিনি বললেন: মুসলিমদের সকল বন্দীদেরকেও কি ছেড়ে দেবেন? সে বলল: হ্যাঁ, তখন সে তার মাথায় চুমু দিলে তাদেরকে মুক্ত করে দেওয়া হল। তাদেরকে নিয়ে উমারের কাছে আগমণ করলে, তিনি দাঁড়িয়ে তার মাথায় চুমু দিলেন। তিনি ৩৩ হিজরীর দিকে মারা যান।
हिन्दी अब्दुल्लाह बिन हुज़ाफ़ा बिन क़ैस क़ुरशी सहमी एक बड़े सहाबी और आरंभिक काल में इस्लाम ग्रहण करने वाले लोगों में से हैं। कुछ लोगों का कहना है कि बद्र युद्ध में शामिल हुए। उनके मक़ाम का अंदाज़ा इससे लगाया जा सकता है कि उमर -रज़ियल्लाहु अन्हु- ने रूम की ओर एक सेना भेजी, जिसमें अब्दुल्लाह बिन हुज़ाफ़ा भी शामिल थे। वह युद्ध में क़ैद कर लिए गए, तो रूमी बादशाह ने उनसे कहा कि तुम ईसाई बन जाओ, मैं तुम्हें राज-पाठ में हिस्सेदार बना दूँगा। लेकिन उन्होंने इनकार कर दिया। इसके बाद बादशाह के आदेश पर उनको सूली पर चढ़ा दिया गया और उन्हें तीर का निशाना बनाने का आदेश दिया। लेकिन वह इससे भी नहीं घबराए। अतः उनको उतार दिया गया। फिर एक हांडी में पानी डालकर उसे अच्छी तरह गर्म होने दिया गया और उसके बाद एक क़ैदी को उसमें डाल दिया गया, जो क्षण भर में जल गया। अब उनसे कहा गया कि यदि वह ईसाई धर्म ग्रहण नहीं करेंगे, तो उनको भी हांडी में डाल दिया जाएगा। जब उनको हांडी के पास ले जाया गया, तो रोने लगे। यह देख उनको वापस लाया गया और रोने का कारण पूछा गया, तो उन्होंने उत्तर दिया कि मेरे दिल में यह अरमान है कि काश मेरे पास सौ प्राण होते और हर एक को इसी तरह गर्म पानी में डाला जाता। यह सुन बादशाह आश्चर्यचकित रह गया और बोला कि यदि तुम मेरे माथे को चूम लो तो मैं तुम्हें छोड़ दूँगा। इसपर उन्होंने कहा कि क्या तुम मेरे सारे साथियों को भी छोड़ दोगे? उसने हाँ में उत्तर दिया तो उन्हों ने उसके सर को चूमा और इस तरह अपने सारे साथियों को छुड़ा लिया। सब लोगों को साथ लेकर उमर -रज़ियल्लाहु अन्हु- के पास आए, तो उमर -रज़ियल्लाहु अन्हु- खड़े हुए और उनके सर को चूमा। लग-भग सन् 33 हिजरी में मृत्यु को प्राप्त हुए।
తెలుగు అబ్దుల్లాహ్ బిన్ హుజాఫా బిన్ ఖైస్ ఖురషి అస్సహ్మీ ఒక గొప్పసహాబీ. ప్రప్రథమంగా ఇస్లాం స్వీకరించిన వారిలో ఒకరు. బదర్ యుద్ధంలో పాల్గున్నారని కొందరు చెప్పారు.ఆయన స్థాన్నాన్ని ఉమర్ రజియల్లాహు అన్హు రోమ్ వైపుకు సైన్యాన్ని పంపారు, అందులో అబ్దుల్లా బిన్ హుజాఫా కూడా ఉన్నారు అనే విషయంగా అంచనా వేయవచ్చు.అతను యుద్ధంలో ఖైదు చేయబడ్డారు. అప్పుడు రూమీ చక్రవర్తి అతనితో మీరు క్రిస్టియన్ అవ్వండి, నేను నిన్ను రాజపాఠశాలలో భాగస్వామిని చేస్తాను'అని అన్నాడు. కానీ దానికి అతను నిరాకరించారు. దీని తరువాత చక్రవర్తి ఆదేశాల మేరకు అతను శిలువ వేయబడ్డారు బాణం గురిపెట్టమని ఆదేశించబడింది. కానీ అతను దానికి కూడా భయపడలేదు.కాబట్టి అతన్ని క్రిందికి దింపారు.తరువాత ఒక హండీలో నీళ్లు పోసి బాగా వేడెక్కేలా మరగబెట్టి ఆ తరువాత ఒక ఖైదీని అందులో పడేశారు, క్షణంలో అతను కాలిపోయాడు. ఇప్పుడు క్రైస్తవుడిగా మారకపోతే తనని కూడా ఆ వేడి హాండిలో పడేస్తానని చెప్పాడు. హండీ దగ్గరకు తీసుకెళ్తే ఏడవడం మొదలుపెట్టాడు.ఇది చూసి వెనక్కి తీసుకొచ్చి ఏడవడానికి కారణం అడగ్గా, నా మనసులో ఒక కోరిక ఉంది, నాకు వంద ప్రాణాలు ఉంటే, ఒక్కొక్క ప్రాణాన్ని ఈ వేడినీళ్లకు అర్పించేవాడిని అని సమాధానమిచ్చాడు. అది విని ఆశ్చర్యపోయిన రాజు నా నుదిటిపై ముద్దుపెట్టుకుంటే నేను నిన్ను వదిలేస్తాను అని అన్నాడు. దీనిపై ఆయన మాట్లాడుతూ నా సహచరులందరినీ కూడా వదిలేస్తారా? అని అడిగారు, దానికతను అవును అని సమాధానం ఇచ్చాడు. అప్పుడు ఆయన అతని తలను ముద్దాడారు. ఈ విధంగా అతని సహచరులందరినీ విడిపించారు. ఉమర్'రజియల్లాహు అన్హు సైనికులందరినీ వెంట తీసుకొని వచ్చినప్పుడు ఆయన లేచి నిలబడి అతని తలను ముద్దాడారు. ఇంచుమించు హిజ్రీ 33వ సంవత్సరంలో మరణించారు.

معرفة الصحابة لأبي نعيم (3/1615)، الاستيعاب في معرفة الأصحاب (3/888)، تاريخ دمشق (27/345)، الأعلام للزركلي (4/78).