Category: Persons .

الحسن بن يسار البصري

English Al-Hasan ibn Yasār al-Basri
اردو حسن بن یسار بصری
বাংলা ভাষা হাসান ইবন ইয়াসার আল-বাসরী
हिन्दी हसन बिन यसार बसरी
తెలుగు అల్ హసన్ బిన్ యసార్ అల్ బసరి.

الحسن البصري

English Al-Hasan al-Basri
اردو حسن بصری
বাংলা ভাষা হাসান আল-বাসরী
हिन्दी हसन बसरी
తెలుగు అల్ హసన్ బసరి.

الحسن بن يسار البصري، أبو سعيد، تابعي فقيه ثقة مكثر من الحديث، ولد بالمدينة عام 21، كان إمام أهل البصرة، وحبر الأمة في زمنه، وهو أحد العلماء الفقهاء الفصحاء الشجعان النساك، وسكن البصرة، وعظمت هيبته في القلوب فكان يدخل على الولاة فيأمرهم وينهاهم، لا يخاف في الحق لومة، وله مع الحجاج ابن يوسف مواقف، وقد سلم من أذاه، ولما ولي عمر بن عبد العزيز الخلافة كتب إليه: إني قد ابتليت بهذا الأمر فانظر لي أعوانا يعينونني عليه. فأجابه الحسن: أما أبناء الدنيا فلا تريدهم، وأما أبناء الآخرة فلا يريدونك، فاستعن باللَّه. توفي عام 110.

English He is Al-Hasan ibn Yasār al-Basri, Abu Sa‘īd. He was a Tābi‘i (a Muslim who met a Companion of the Prophet and died as a Muslim), a reliable jurist, and a Mukthir (a narrator whose narrations of Hadīth are large in number). He was born in Madīnah in 21 AH. He was the Imam of the people of Basrah, and Habr of al-Ummah (the most prominent scholar of the Ummah) at his time. He was an insightful,eloquent, brave, and an ascetic scholar. He lived in Basrah. He was highly esteemed; hence, he used to enter upon the rulers enjoining goodness and forbidding evil, fearing no reproach from any critic. He stood up against Al-Hajjāj ibn Yūsuf in a number of situations, but he remained safe from his harm. When ‘Umar ibn ‘Abdul-‘Azīz was appointed caliph, he wrote him a message saying: "I have been afflicted with this (ruling) issue; so, find me assistants who can help me with it." Al-Hasan replied saying: "As for those who seek the worldly life, you do not want to them (to be your assistants), and as for those who seek the Hereafter, they do not want you. So, seek help from Allah." He died in 110 AH.
اردو ابو سعید حسن بن یسار بصری ایک فقیہ، ثقہ اور بڑی تعداد میں حدیث روایت کرنے والے تابعی ہیں۔ سنہ 21 میں مدینے کے اندر پیدا ہوئے، بصرہ والوں کے امام اور اپنے زمانے میں اس امت کے بحر زخار مانے جاتے تھے، ایک فقیہ، فصیح، بہادر اور زاہد عالم تھے، بصرہ میں سکونت اختیار کر لی تھی، لوگوں کے دلوں میں ان کی بڑی ہیبت تھی، یہی وجہ ہے کہ حکام کے یہاں جاتے، ان کو بھلائی کا حکم دیتے، برائی سے روکتے اور اس معاملے میں کسی ملامت گر کی ملامت کو پرواہ میں نہ لاتے، کئی موقعوں پر حجاج بن یوسف سے ٹکر لے لی، لیکن اس کے باجود اس کی اذیت رسانی سے محفوظ رہے، عمر بن عبدالعزیز نے جب خلافت سنبھالی، تو ان کو لکھ کر بھیجا : میں مسند خلافت کو سنبھالنے کی آزمائش میں مبتلا ہو گیا ہوں، لہذا میرے کچھ معاونین دیکھیں جو اس کام میں میری مدد کریں، اس کے جواب میں حسن بصری نے لکھ کر بھیجا : آپ کو دنیادار لوگ نہيں چاہیے اور آخرت والے لوگ آپ کے پاس جانا نہيں چاہیں گے، سنہ 110 میں وفات پائی۔
বাংলা ভাষা আল-হাসান ইবন ইয়াসার আল-বাসরী, আবূ সা‘ঈদ। তিনি একজন ফকীহ তাবেয়ী এবং অধিক হাদীস বর্ণনাকারী ছিলেন। তিনি একুশ হিজরীতে মদীনাতে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি বসরাবাসীর ইমাম ছিলেন। তার সময়ে তিনি বিদ্বান ব্যক্তি ছিলেন। তিনি অধিক ইবাদাতগুজার, সাহসী, শুদ্ধভাষী, আলিম ও ফকীহ ছিলেন। তিনি বসরাতে বসবাস করতেন। তার ভাব-গাম্ভীর্য অন্তরসমূহে প্রভাব ফেলত। আর তাই তিনি শাসকদের কাছে গমণ করে তাদেরকে সৎকাজে আদেশ ও অসৎ কাজে নিষেধ করতেন। তিনি সত্যের ক্ষেত্রে কারো তিরষ্কারের ভয় করতেন না। হাজ্জাজ ইবন ইউসূফের সাথে তার কিছু ঘটনা ছিল। তিনি তার কষ্ট থেকে নিরাপদে ছিলেন। যখন উমার ইবন আব্দুল আযীয খিলাফাতে আসলেন, তখন তিনি তার কাছে লিখে পাঠালেন: আমি এই (ক্ষমতার) দায়িত্বে ফেঁসে গেছি, আমার জন্য কয়েক সাহায্যকারী দেখুন যারা আমাকে তাতে সাহায্য করবেন। হাসান তাকে জবাব দিলেন: যারা দুনিয়াদার আপনি তাদেরকে চান না, আর যারা আখিরাতমুখী তারা আপনাকে চায় না; সুতরাং আল্লাহর কাছেই সাহায্য চান। তিনি ১১০ হিজরীতে মারা যান।
हिन्दी हसन बिन यसार बसरी। कुनयत (उपनाम) अबू सईद है। एक विश्वस्त फ़कीह और बड़ी संख्या में हदीस वर्णन करने वाले ताबेई थे। मदीने में सन् 21 हिजरी में पैदा हुए। बसरा वालों के इमाम और अपने युग में पूरी उम्मत के एक बड़े इस्लामी विद्वान थे। उनका शुमार फ़क़ीह, शानदार भाषा में बात करने वाले, बहादुर एवं दुनिया के मोह माया से मुक्त उलेमा में होता है। बसरा में रहते थे। लोगों के दिलों में उनका रोब (धाक) इतना बैठ गया था कि वह शासकों के पास जाते और उनको भलाई का आदेश देते तथा बुराई से रोकते और किसी की कोई परवाह नहीं करते। कई बार उनका सामना हज्जाज बिन यूसुफ़ से हुआ, लेकिन हर बार उनके अत्याचार से बच गए। जब उमर बिन अब्दुल अज़ीज़ ख़लीफ़ा बने, तो उन्होंने हसन बसरी को लिख भेजा कि : मेरे कंधों पर ख़िलाफ़त का बोझ डाल दिया गया है, अतः मुझे कुछ ऐसे लोग ढूँढकर दीजिए, जो मेरी मदद करें। हसन बसरी ने इसका उत्तर दिया : जहाँ तक दुनिया चाहने वाले लोगों की बात है, तो इस तरह के लोग आपको नहीं चाहिए, और जहाँ तक आख़िरत चाहने वाले लोगों की बात है, तो इस प्रकार के लोग आपके पास जाना नहीं चाहेंगे। अतः आप अल्लाह से मदद माँगिए। उनकी मृत्यु सन् 110 हिजरी में हुई।
తెలుగు హసన్ బిన్ యసార్ అల్ బసరీ. అబూ సయీద్ ఆయన కునియతు. ఇతను పెద్ద సంఖ్యలో హదీసులను ఉల్లేఖించిన విశ్వసనీయ ఫఖీహ్ మరియు తాబయీగా గతించారు.హిజ్రీ 21న మదీనాలో జన్మించారు. అతను బస్రావాసులకు ఇమామ్ మరియు ఆ కాలంలో మొత్తం ఉమ్మతు యొక్క గొప్ప ఇస్లామిక్ పండితుడుగా ఖ్యాతి ఘటించారు. అతను భాషా ప్రావీణ్యులు, ధైర్యవంతులు, ఫఖీహ్ గా పరింగణించబడ్డారు. బసరాలో నివసించారు. అతని గంభీరత ప్రజల హృదయాల్లో లోతుగా ఉండేది, అతను పాలకుల వద్దకు వెళ్లి వారికి మంచిని ఆదేశిస్తూ చెడును నిరోధించేవారు.ఎవరనేది పట్టించుకునేవారు కాదు. అతను చాలాసార్లు హజ్జాజ్ బిన్ యూసుఫ్ ను కూడా ఎదుర్కొన్నారు, కానీ ప్రతిసారీ అతని దుర్మార్గం నుండి రక్షించబడ్డారు. ఉమర్ బిన్ అబ్దుల్ అజీజ్ ఖలీఫా అయినప్పుడు అతను హసన్ బసరీకి ఇలా లేఖ వ్రాసారు: ఖలీఫా యొక్క భారం నా భుజాలపై మోపబడింది, కాబట్టి నాకు సహాయం చేసే వారిని కొంతమందిని తెలియజేయండి. దానికి హసన్ బసరీ సమాధానమిస్తూ: ప్రపంచాన్ని కోరుకునే వ్యక్తులకు సంబంధించినంతవరకు, మీకు అలాంటి వ్యక్తుల అవసరం లేదు, పరలోకం కోరుకునే వ్యక్తులు మీ వద్దకు రాడానికి ఇష్టపడరు. కాబట్టి మీరు సహాయం కోసం అల్లాహ్ ను ప్రార్థించండి.అతను హిజ్రీ శకం110 వ సంవత్సరంలో మరణించారు.

تاريخ ابن معين، رواية الدوري (4/ 176) معجم الأدباء، إرشاد الأريب إلى معرفة الأديب (3/ 1023) مغاني الأخيار في شرح أسامي رجال معاني الآثار (1/ 207) الأعلام للزركلي (2/ 226)