Category: Persons .

الرميصاء أو الغميصاء بنت ملحان الأنصارية

English Ar-Rumaysā’ or Al-Ghumaysā’ bint Milhān al-Ansāriyyah
اردو رمیصاء یا غمیصاء بنت ملحان انصاریہ
বাংলা ভাষা রুমাইসা অথবা গুমাইসা বিনত মিলহান আল-আনসারিয়্যাহ
हिन्दी रुमैसा अथवा ग़ुमैसा बिन्त मिलहान अन्सारिया
తెలుగు అర్రుమైసా లేక అల్ గుమైసా బింతే మిల్హాన్ అల్ అన్సారియా.

أم سُليم -رضي الله عنها-

English Umm Sulaym (may Allah be pleased with her)
اردو ام سلیم -رضی اللہ عنہا-
বাংলা ভাষা উম্মে সুলাইম রাদিয়াল্লাহু ‘আনহা
हिन्दी उम्म-ए-सुलैम -रज़ियल्लाहु अन्हा-
తెలుగు ఉమ్మే సులైమ్ రజియల్లాహు అన్హా.

أم سليم بنت مِلْحان بن خالد بن زيد الأنصارية، أم أنس وأخت أم حرام، صحابية جليلة، لها رواية، لقبها الغميصاء، ويقال: الرميصاء، واسمها سهلة، ويقال: رملة، ويقال: رُميثة، ويقال: أُنَيفة، وقيل: مليكة، ثبت عن أنس عن النبي -صلى الله عليه وسلم- قال: (دخلت الجنة فسمعت خَشَفةً، فقلت: من هذا؟ قالوا: هذه الغميصاء بنت ملحان أم أنس بن مالك)، ولم يكن -صلى الله عليه وسلم- يدخل بيتًا بالمدينة غير بيت أم سليم إلا على أزواجه، فقيل له، فقال: (إني أرحمها قتل أخوها معي)، كانت تحت مالك بن النضر في الجاهلية فولدت له أنسًا فلما جاءها الله بالإِسلام أسلمت مع قومها وعرضت الإِسلام على زوجها فغضب عليها وخرج إلى الشام فهلك، توفيت نحو عام 30.

English She is Umm Sulaym bint Milhān ibn Khālid ibn Zayd al-Ansāriyyah, the mother of Anas and the sister of Umm Harām. She was an honorable female Companion. She narrated from the Prophet (may Allah's peace and blessings be upon him). Her nickname was 'Al-Ghumaysā’' or 'Ar-Rumaysā’'. Her name was Sahlah, or Ramlah, or Rumaythah, or Unayfah, or Malīkah. It was authentically reported on the authority of Anas that the Prophet (may Allah's peace and blessings be upon him) said: "When I entered Paradise, I heard someone's footsteps. When I asked about who it was, it was explained to me that she was Al-Ghumaysā’ bint Milhān, mother of Anas ibn Mālik." Her house was the only house, beside his wives', that the Prophet (may Allah's peace and blessings be upon him) used to visit in Madīnah. When he was asked about that, he replied: "I pity her as her brother was killed while being with me." In the pre-Islamic era of ignorance, she was married to Mālik ibn an-Nadr and gave birth to Anas. Then, she embraced Islam with her people and invited her husband to Islam, but he got angry with her and set out to the Levant and died. She died in 30 AH.
اردو ام سلیم بن ملحان بن خالد بن زید انصاریہ، انس کی والدہ اور ام حرام کی بہن، ایک بڑی صحابیہ تھیں، انھوں نے حديث بھی روایت کی ہے، ان کا نام غمیصاء اور ایک قول کے مطابق رمیصاء ہے، نام سہلہ ہے، کچھ لوگوں نے رملہ، کچھ لوگوں نے رمیثہ، کچھ لوگوں نے انیقہ اور کچھ لوگوں نے ملیکہ بھی کہا ہے،ایک حدیث میں انس -رضی اللہ عنہ- سے مروی ہے کہ اللہ کے نبی -صلی اللہ علیہ و سلم- نے فرمایا ہے : "میں جنت میں داخل ہوا تو کسی کے قدموں کی آہٹ سنی، میں نے پوچھا کہ یہ کون ہے؟ تو فرشتوں نے بتایا کہ یہ انس بن مالک کی ماں غمیصاء بنت ملحان ہیں۔" اللہ کے نبی -صلی اللہ علیہ و سلم- مدینے کے کسی بھی گھر میں شوہروں کی عدم موجودگی میں داخل نہيں ہوتے تھے، سواے ام سلیم کے گھر کے، اس کی وجہ پوچھی گئی تو فرمایا : "مجھے ان پر رحم آتا ہے، ان کے بھائی کو میرے ساتھ رہتے ہوئے قتل کیا گیا تھا۔" دور جاہلیت میں مالک بن نضر کے نکاح میں تھیں، اسی کے نکاح میں رہتے ہوئے انس پیدا ہوئے تھے، اسلام آیا، تو اپنی قوم کے ساتھ مسلمان ہو گئیں، اپنے شوہر سے اسلام قبول کرنے کو کہا تو وہ ناراض ہو گیا اور شام کی جانب نکل گیا، اسی بیچ وہ مر بھی گیا۔ ام سلیم کا انتقال سنہ 30 کے آس پاس ہوا۔
বাংলা ভাষা উম্মু সুলাইম বিনত মিলহান ইবন খালিদ ইবন যাইদ আল-আনসারিয়্যাহ, তিনি আনাস রাদিয়াল্লাহু ‘আনহহুর মা ও উম্মু হারামের বোন ছিলেন। তিনি একজন সম্মানিত মহিলা সাহাবী ছিলেন। তার বেশ কিছু হাদীস রয়েছে। তার লকব ছিল- গুমাইসা, কেউ কেউ বলেছেন: রুমাইসা। তার নাম ছিল সাহলাহ। কেউ কেউ বলেছেন: রমলাহ, আরো বলা হয়- রুমাইছা, আরো বলা হয়- আনীফাহ, আরো বলা হয়: মালীকাহ। আনাস রাদিয়াল্লাহু আনহু সূত্রে প্রমাণিত হয়েছে যে, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন: “আমি জান্নাতে প্রবেশ করলাম। আর সেখানে একটি শব্দ শুনতে পেলাম, তখন আমি বললাম: এ কে? তারা (মালায়েকাগণ) বললেন: সে হচ্ছে গুমাইসা বিনত মিলহান, আনাস ইবন মালিকের মাতা।” নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মদীনাতে তার স্ত্রী ছাড়া অন্য কারো গৃহে প্রবেশ করতেন না; তবে উম্মু সুলাইমের গৃহে যেতেন। তাকে কারণ জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন: “আমার সাথে থেকে তার ভাই নিহত হয়েছে; আমি তার প্রতি সহানুভূতি জানাই।” তিনি জাহেলী যুগে মালিক ইবনুন নাদারের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ ছিলেন, সেখানেই আনাসের জন্ম হয়। তারপরে যখনই তার সামনে ইসলাম আগমণ করে, তখন তিনি তার কওমের সাথে ইসলাম গ্রহণ করেন। আর তার স্বামীর কাছে ইসলাম পেশ করলে সে রাগান্বিত হয়ে সিরিয়া চলে যায়, পরে সেখানে মারা যায়। উম্মু সুলাইম ৩০ হিজরীর কাছাকাছি সময়ে মৃত্যুবরণ করেন।
हिन्दी उम्म-ए-सुलैम बिन्त मिलहान बिन ख़ालिद बिन ज़ैद अन्सारिया, अनस -रज़ियल्लाहु अन्हु- की माता तथा उम्म-ए-हराम की बहन, एक बड़ी सहाबिया हैं। अल्लाह के रसूल -सल्लल्लाहु अलैहि व सल्लम- से हदीसें वर्णन की हैं। उनकी उपाधि ग़ुमैसा है। कुछ लोगों ने रुमैसा भी कहा है। नाम सहला है। कुछ लोगों ने रमला, कुछ ने रुमैसह, कुछ ने उनैफा और कुछ ने मुलैका भी कहा है। अनस -रज़ियल्लाहु अन्हु- से वर्णित एक रिवायत में है कि अल्लाह के रसूल -सल्लल्लाहु अलैहि व सल्लम- ने फ़रमाया : "मैंने जन्नत में प्रवेश किया, तो किसी के चलने की आहट सुनी। मैंने कहा कि यह कौन है? तो उत्तर मिला कि यह अनस की माता ग़ुमैसा बिन्त मिलहान हैं।" अल्लाह के रसूल -सल्लल्लाहु अलैहि व सल्लम- उम्म-ए-सुलैम के घर के अतिरिक्त किसी के घर में पुरुषों की अनुस्थिति में प्रवेश नहीं करते थे। इसका कारण पूछा गया, तो फ़रमाया : "मुझे उसपर दया आती है, उसका भाई मेरे साथ मारा गया है।" उम्म-ए-सुलैम अज्ञानता काल (जाहिलीयत ) में मालिक बिन नज़्र की पत्नी थीं और दोनों से अनस -रज़ियल्लाहु अन्हु- पैदा हुए थे। जब उनको इस्लाम की सूचना मिली, तो अपनी जाति के साथ मुसलमान हो गईं और अपने पति को भी इस्लाम ग्रहण करने के लिए कहा। लेकिन वह क्रोधित हो गया। फिर शाम गया और वहीं मर गया। उम्म-ए-सुलैम का देहांत सन् 30 हिजरी में हुआ।
తెలుగు ఉమ్మే సులైమ్ బింతే మిల్హాన్ బిన్ ఖాలిద్ బిన్ జైద్ అల్ అన్సారియా. అనస్-రజియల్లాహు అన్హు-కు తల్లి మరియు ఉమ్మే హరామ్'కు సోదరి. ఒక గొప్ప సహాబియా.దైవప్రవక్త -సల్లల్లాహు అలైహి వసల్లం ద్వారా అనేక హదీసులు ఉల్లేఖించారు. ఆమె బిరుదు గుమైసా. కొంతమంది రుమైసా అని చెప్పారు. ఆమె పేరు సహల.అని మరికొందరు రమ్లా అని, ఇంకొందరు రుమైసా, మరికొందరు ఉనైఫా, మరికొందరు ములైకా అని కూడా చెప్పారు. అనస్-రజియల్లాహు అన్హు- నుండి ఉల్లేఖించబడిన ఒక కథనంలో, దైవప్రవక్త సల్లల్లాహు అలైహి వసల్లం ఇలా అన్నారు: "నేను స్వర్గంలోకి ప్రవేశించాను అప్పుడు ఎవరో నడిచి వెళ్లడం విన్నాను. ఇది ఎవరు అని నేను అడిగాను? దానికి అనస్ తల్లి గుమైసా బింతే మిల్హాన్ అని సమాధానం లభించింది" అల్లాహ్ యొక్క ప్రవక్త - సల్లల్లాహు అలైహి వసల్లం - పురుషుల సమక్షంలో ఉమ్మే సులైమ్ ఇంట్లో తప్ప ఎవరి ఇంట్లోకి ప్రవేశించలేదు. దీనికి కారణాన్ని అడిగినప్పుడు, ఆయన ఇలా చెప్పారు: నాకు ఆమె పై దయ కలుగుతుంది.ఆమె సోదరుడు నాతో చంపబడ్డాడు." ఉమ్మే -సులైమ్ అజ్ఞాన కాలంలో (జాహిలియత్)లో మాలిక్ బిన్ నజర్ భార్యగా ఉండేది. వారిద్దరికీ అనస్-రజియల్లాహు అన్హు జన్మించారు. ఆమెకు ఇస్లాం సందేశం తెలియగానే, ఆమె తన జాతివారితో పాటు ఇస్లాం స్వీకరించింది. తన భర్తను ఇస్లాం స్వీకరించమని కోరింది. కానీ అతనికి కోపం వచ్చింది. అప్పుడు అతను షామ్ పట్టణానికి వెళ్లిపోయాడు.అక్కడే మరణించాడు. ఉమ్మే సులైమ్ హిజ్రీ 30వ సంవత్సరంలో మరణించారు.

صحيح البخاري (5/ 10 ح3679، 4/ 27 ح2844)، صحيح مسلم (4/ 1908 ح2456، 4/ 1908 ح2455)، الطبقات الكبرى (8/ 312)، فضائل الصحابة للنسائي (ص: 85)، معجم الصحابة للبغوي (1/ 43)، الجرح والتعديل لابن أبي حاتم (9/ 462)، الثقات لابن حبان (3/ 132)، معرفة الصحابة لأبي نعيم (6/ 3504)، الإعلام بفوائد عمدة الأحكام (2/ 60)، تهذيب التهذيب (12/ 471)، مغاني الأخيار في شرح أسامي رجال معاني الآثار (3/ 566)، نزهة الألباب في الألقاب (1/ 329)، الأعلام للزركلي (3/33).